লিভারপুল বনাম রিয়াল মাদ্রিদ: অন্ধকার সময়ে এক অসাধারণ ফাইনাল

লিভারপুল বনাম রিয়াল মাদ্রিদ: অন্ধকার সময়ে এক অসাধারণ ফাইনাল

বাংলাদেশ সময় আজ শনিবার দিবাগত রাত একটায় প্যারিসে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে মুখোমুখি হবে রিয়াল মাদ্রিদ ও লিভারপুল। এ ম্যাচ সামনে রেখে ইংলিশ দৈনিক দ্য গার্ডিয়ানে বিশেষজ্ঞ কলাম লিখেছেন বায়ার্ন মিউনিখের জার্মান কিংবদন্তি ডিফেন্ডার ফিলিপ লাম। প্রথম আলোর পাঠকদের জন্য থাকছে সেটির অনুবাদিত রূপ…

১৫ ফেব্রুয়ারি প্যারিসে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে যখন হেরে যায় রিয়াল মাদ্রিদ, দুনিয়াটা তখন ভিন্নরকম এক জায়গা ছিল। দ্বিতীয় লেগের সময় যত দিনে এল, রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা চালিয়েছে। ফুটবল তখন আর অত গুরুত্বপূর্ণ নয়। কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদকে ওভাবে অবিশ্বাস জাগিয়ে ম্যাচটা ঘুরিয়ে দিতে যাঁরা দেখেছেন, তাঁরা সেটা কখনো ভুলবেন না।

এ বছর চ্যাম্পিয়নস লিগ এমন একটা সময়ে হচ্ছে, যখন ইউরোপে যুদ্ধ চলছে। ফাইনালে যাওয়ার পথে তারা (রিয়াল মাদ্রিদ) পিএসজির বিপক্ষে যেভাবে জিতেছে, গত বছরে ফাইনালে খেলা দুই দল চেলসি ও ম্যানচেস্টার সিটিকেও সেভাবেই হারিয়েছে। তাদের প্রতিপক্ষ দুই ম্যাচেই দাপট দেখিয়েছে, রিয়াল গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তগুলোয় বেঁচে গেছে, এরপর প্রতিপক্ষ আর বিশ্ব ফুটবলকে চমকে দিয়েছে অবিশ্বাস মাখানো কিছু মুহূর্তে।

সিটির বিপক্ষে সেমিফাইনালে রিয়াল ৯০তম মিনিটেও ২ গোলে পিছিয়ে ছিল, সেখান থেকে জিতেছে। ম্যাচটা আমাকে ১৯৯৯ চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কাছে বায়ার্ন মিউনিখের বেদনাজাগানো হার, অথবা ২০১২ সালে ‘ফিনালে দাহাওমে’ (ঘরের মাঠের ম্যাচ) চেলসির জয়—আমার সর্বশেষ ধাক্কার কথা মনে করিয়ে দিয়েছে। প্রিমিয়ার লিগে আবার গত রোববার সিটি ০-২ গোলে পিছিয়ে পড়ার পর পাঁচ মিনিটে ৩-২ করে চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেল। এই ব্যাখ্যার অসাধ্য ব্যাপারগুলোই ফুটবলের মজা।